প্রথম দিনে অনুপস্থিত ৬৫ হাজার, বহিষ্কার ৩৪ শিক্ষার্থী

শেয়ার করুন

জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার প্রথম দিনে প্রায় ৬৪ হাজার ৯৯৫ জন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল।

প্রথম দিন জেএসসিতে বাংলা প্রথমপত্র এবং জেডিসিতে কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। আগামীকাল জেএসসি’র বাংলা ২য় পত্র (নিয়মিত শিক্ষার্থীদের জন্য) এবং জেডিসি’র আরবি-১ পত্র পরীক্ষা হওয়ার কথা রয়েছে।

বৃহস্পতিবার মতিঝিল সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় ও বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, প্রশ্নফাঁস ছাড়াই সারা দেশে সুষ্ঠুভাবে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা শুরু হয়েছে। এই অপকর্ম ঠেকাতে আমাদের যা যা করণীয়, আমরা তা-ই করেছি। ফলে এ পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস হওয়ার কোনো রকম আশঙ্কা নেই। তিনি বলেন, পাবলিক পরীক্ষায় অপকর্ম ঠেকাতে পাঁচ মন্ত্রণালয় কাজ করছে। চার স্তরে নিরাপত্তা বাহিনী নিয়োজিত রয়েছে। ফলে এবার প্রশ্নপত্র ফাঁসের কেউ সুযোগ পাবে না।

জেএসসি ও জেডিসিতে সব মিলিয়ে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ২৪ লাখ ১৮ হাজার ৩৮২ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২৩ লাখ ৫৩ হাজার ৩৮৭ জন। মোট অনুপস্থিত ছিল ৬৪ হাজার ৯৯৫ জন। আর মোট বহিষ্কার হয়েছে ৩৪ জন।

এবার ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ৫০১টি পরীক্ষা কেন্দ্রে মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৬ লাখ ৬৫ হাজার ১৪২ জন। এর মধ্যে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ৬ লাখ ৫১ হাজার ১২ জন। অনুপস্থিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৪ হাজার ১৩১ জন। এর মধ্যে পরীক্ষায় অসুুদোপায় অবলম্বনের জন্য ঢাকা বোর্ডে বহিষ্কার হয়েছে ৬ শিক্ষার্থী।

চট্টগ্রাম বোর্ডে ২২৪টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী ছিল ১ লাখ ৮২ হাজার ৪৮৪ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ১ লাখ ৭৯ হাজার ২৫২ জন। অনুপস্থিত ৩ হাজার ১৯৬ জন। এই বোর্ডে বহিষ্কার নেই।

রাজশাহী বোর্ডে ২৫৩ কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী ছিল ২ লাখ ৪৭ হাজার ৩৭৫ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ লাখ ৪২ হাজার ৮২ জন। অনুপস্থিত ৫ হাজার ২৯৩ জন। বহিষ্কার হয়নি একজনও।

বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের ১৭৪টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী ১ লাখ ১৮ হাজার ৩৮২ জন। অংশ নিয়েছে ১ লাখ ১৫ হাজার ১২৬ জন। অনুপস্থিত ৩ হাজার ২৫৬ জন। বহিষ্কার ৮ জন।

সিলেট শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ১৩১টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ লাখ ৪৩ হাজার ৩৮২ জন। অংশ নিয়েছে ১ লাখ ৪০ হাজার ৩৯৬ জন। আর অনুপস্থিত ছিল ২ হাজার ৯৮৬ জন। কেউ বহিষ্কার নেই।

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ২৮২টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী ছিল ২ লাখ ৯৬২ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ লাখ ৩৫ হাজার ৩৯৬ জন। অনুপস্থিত ছিল ৫ হাজার ৫৫৬ জন। বহিষ্কার হয়েছে ১ জন। কুমিল্লা বোর্ডে ২৯৯টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী ছিল ২ লাখ ৩২ হাজার ২৩৮ জন। আর পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ লাখ ২৭ হাজার ৮৮৪ জন। অনুপস্থিত শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৪ হাজার ৩৫৪ জন। বহিষ্কার হয়েছে ২ জন।

যশোর বোর্ডে মোট ২৭০টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২ লাখ ১৪ হাজার ৪২৮ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ লাখ ৯ হাজার ৫৬৮ জন। অনুপস্থিত ছিল ৪ হাজার ৮৬০ জন। বহিষ্কার নেই। অন্যদিকে মাদ্রাসায় জেডিসিতে ৪ লাখ পরীক্ষার্থী উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও এদিন প্রায় ২১ হাজার ৩৫৬ জন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল। এ বোর্ডে বহিষ্কার হয়েছে ১৭ জন পরীক্ষার্থী।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of